জেনে নিন সেরা ১৮টি ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম কালেকশন

সারাবিশ্বব্যাপী ওয়ার্ডপ্রেসের এক বিশাল কমিউনিটি রয়েছে। যেখানে ডিজাইনার থেকে শুরু করে ডেভেলপার, লেখক, ব্লগার এবং অন্যান্য ব্যবহারকারীরা রয়েছেন। আর তাই এই বৃহৎ গোষ্ঠীর কথা মাথায় রেখে ওয়ার্ডপ্রেসের বিভিন্ন ফ্রি থিম সহজলভ্য হয়েছে। কোনো ওয়েবসাইট বা ব্লগ দাঁড় করাতে ওয়ার্ডপ্রেসের বিকল্প নেই। কাস্টম সাইট ডিজাইন, হোস্টিং, ডোমেইন প্রভৃতির ঝক্কি ঝামেলা থেকে দূরে থেকে এসব ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম ব্যবহার করে আপনিও হতে পারেন এই বৃহৎ কমিউনিটির অন্যতম অংশীদার!

আজ আমরা সেরা ১৫টি ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম কালেকশন নিয়ে আলোচনা করবো।

 

১। Hamilton

Hamilton মূলত একটি পোর্টফোলিও থিম যার রেসপন্সিভ এবং চমৎকার টাইপোগ্রাফিক সুবিধা থাকার কারণে এটি অডিয়েন্সকে আকৃষ্ট করতে বেশ সাহায্য করে। এতে Jetpack Infinite Scroll module কে সাপোর্ট দেয়ার জন্য বিল্ট-ইন সুবিধা রয়েছে। এছাড়া এতে সাদা ব্যাকগ্রাউন্ডের পাশাপাশি ডার্ক মোডের ব্যবস্থা রয়েছে। যা দিয়ে সাদা টেক্সটের কনটেন্ট ডার্ক ব্যাকগ্রাউন্ডে দেখা যাবে।

২। Monty

ফ্রিল্যান্সারদের কথা মাথায় রেখে এই Monty ওয়ার্ডপ্রেস থিমটি ডিজাইন করা হয়েছে। এটি মূলত ওয়ান-পেইজ পোর্টফোলিও থিম যেখানে প্রচুর পরিমাণে চমৎকার সব ফিচার পাওয়া যাবে। আর এই ফিচারগুলো দেখে আপনার মনে হবে আপনি কোনো ফ্রি না বরং প্রিমিয়াম থিম ব্যবহার করছেন। এতে একটি ওয়ান ক্লিক ডেমো ইম্পোর্টার রয়েছে। এছাড়া চমৎকার কালার এবং টাইপোগ্রাফি আপনার কনটেন্টকে করে তুলবে আরও আকর্ষণীয়।

৩। Business Zone

এই থিমটি বিজনেস জোনের কথা মাথায় রেখে ডিজাইন করা হয়েছে। বিজনেস জোনের কথা বললাম দেখে আবার ভুল করে ভেবে বসবেন না এই থিমের জন্য টাকাপয়সা খরচ করতে হবে! এই ওয়ার্ডপ্রেস থিম দিয়ে বিজনেসের সাথে সম্পৃক্ত সকল তথ্য উপস্থাপন করা সম্ভব। কর্পোরেট ক্লায়েন্ট ছাড়া আর অনেক সেকশন আছে যা দিয়ে একটি সম্পূর্ণ রেস্পন্সিভ আকারের সাইট তৈরি করা সম্ভব। এই থিমের সাইট খুব সহজেই কাস্টোমাইজ করা যায়। এই থিমে বিল্ডিং প্রসেসের জন্য King Composer ব্যবহার করা হয়েছে।

৪। Themx

একের অধিক ভাষা সাপোর্ট করানোর জন্য Themx একটি অন্যতম ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম। এটার ড্র্যাগ অ্যান্ড ড্রপ ইন্টারফেস থাকার এটা দিয়ে তৈরি সাইট কাস্টোমাইজ করার উপযুক্ত। এই থিমের সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এটি সবধরণের সাইটে সাপোর্ট করে। একটি বড় সংখ্যার অডিয়েন্স ধরে রাখতে এই থিমের জুড়ি নেই। এছাড়া এতে কাস্টম পোস্ট টাইপ ছাড়া আরও চমৎকার কিছু ফিচার রয়েছে।

৫। Brad

HTML5 এবং CSS3 দিয়ে তৈরি এই থিম দিয়ে তৈরি সাইট যাতে সর্বোচ্চ সংখ্যক ব্রাউজারে চলতে পারে, সেদিকে নজর রেখে ডিজাইন করা হয়েছে। এই থিমটি সম্পূর্ণ রেস্পন্সিভ। মিনিমালিস্ট পোর্টফোলিও সুবিধার কারণে আপনি আপনার সেরা কাজগুলো খুব চমৎকারভাবে উপস্থাপন করতে পারবেন। এতে মাল্টিপল লেয়াউটের তিন ধরণের পোর্টফোলিও রয়েছে যেখানে ১২ কলামের গ্রিড সিস্টেম রয়েছে। ইলিমেন্টর পেইজ বিল্ডার দিয়ে এই গ্র্যানুলার পেইজ তৈরি করা।

৬। Mallow

Mallow নামের এই ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিমটিও সব ধরণের লেখকদের কথা মাথায় রেখেই ডিজাইন করা হয়েছে। ফ্লেক্সিবল ব্ল্যাঙ্ক ক্যানভাস থাকায় এটি লেখকদের যেকোনো কিছু প্রকাশ করার উপযোগী করে ডিজাইন করা হয়েছে। রেগুলার আপডেটের পাশাপাশি এটি অত্যন্ত দ্রুত এবং অত্যন্ত রেসপন্সিভ। তবে এই থিমের প্রো ভার্সনে নিজের ইচ্ছামতো কালার এবং থিম কাস্টোমাইজ করা যায়।

৭। Bandana

রেসপন্সিভ করে বানানো এই থিমে প্রচুর পরিমাণে ফিচার পাওয়া যাবে। রেসপন্সিভ লেআউট এবং  Font Awesome সাপোর্ট থাকার কারণে থিমটি পছন্দসই কাস্টওমাইজ করে নেয়া যাবে। সব ব্রাউজারে পরিক্ষিত এই থিমটি সম্পূর্ণরূপে SEO অপতিমাইজড।

৮। Origin

অনেকক্ষণ ধরে পড়ার মতো ব্লগ তৈরি করতে চাইলে এই থিম দিয়ে সাইট ডিজাইন করতে পারেন। হোমপেইজে প্রচুর পরিমাণে টেক্সট রাখতে চাইলে এই থিমটি বেশ উপযোগী। Origin থিমটি এই কাজটি করে অত্যন্ত চমৎকারভাবে কোনো ঝামেলা ছাড়াই। এখানে আর্টিকেলগুলো কলাম আকারে থাকে। যে কারণে কোনো ক্লান্তি ছাড়াই পাঠকরা এখান থেকে আর্টিকেল পড়তে পারবেন।

 

গ্রাফিক ডিজাইনার না হয়েও যে ১০ টি টুলস ব্যবহার করে খুব সহজেই ডিজাইন করতে পারবেন!

৯। Upright

Upright একটি ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম যা সাধারণত পোর্টফোলিওর জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। রেসপন্সিভ হওয়ার পাশাপাশি ওয়ার্ডপ্রেসের ব্লগ স্টাইলের থিম পোর্টফোলিওর জন্য বেশ সহায়ক। স্লাইডার, সাইডবার কালার পিকার, কাস্টম ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ প্রভৃতি সুবিধা ইউজারকে ইউনিক স্টাইলের সাইট ডিজাইন করতে সাহায্য করবে কোনো কোড ব্যবহার ছাড়াই! এছাড়া এই থিমটি SEO ফ্রেন্ডলি!

১০। Fashionista

ম্যাগাজিন ব্লগের জন্য বোল্ড হেডলাইন রাখার সুযোগ পাওয়া যাবে এই থিম ব্যবহারে। Fashionista মূলত ম্যাগাজিন ঘরানার ব্লগের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। কাজে এই ধরণের বোল্ড হেডলাইন এবং চমৎকার লেআউট ডেস্কটপ কিংবা মোবাইল ভার্সনে বেশ ভালোভাবে উপভোগ করা যাবে। বুটস্ট্র্যাপ দিয়ে এই থিমটি তৈরি করা হয়েছে। আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী সাজিয়ে নিতে পারেন থিমটি।

১১। Hatch

ইমেজ গ্রিডের মাধ্যমে কোনো ক্লিক বা স্ক্রলিং ছাড়াই যেকোনো কাজ প্রদর্শন করা সম্ভব। ইলাস্ট্রেটর, ফটোগ্রাফার থেকে শুরু করে আর্টিস্টদের কাছে এই থিমটি অত্যন্ত পছন্দের। মূল ইমেজের জন্য এই লেআউটে একটি আলাদা বড় স্লট রয়েছে এবং ১২টি ছোট ইমেজের জন্য গ্রিডের ব্যবস্থা রয়েছে। এক স্ক্রিনের ভেতরেই অনেক কিছু প্রদর্শন করার সুবর্ণ সুযোগ রয়েছে এই থিমে। এছাড়াও এতে একটি লাইটবক্স আছে যেখানে আপনি আপনার কাজগুলো আলাদা আলাদাভাবে উপস্থাপন করতে পারবেন।

১২। Lightly

পোর্টফোলিওর জন্য উপযোগী আরেকটি ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম এটি। ম্যাগাজিন থিমের আদলে করা এই ওয়ার্ডপ্রেস থিমে আপনার কনটেন্টকে প্রাধান্য দিতে সক্ষম। ড্র্যাগ এবং ড্রপ অপশন দিয়ে হোম পেইজ স্লাইডার এবং ইউজেট হোমপেইজের কাস্টম লেআউট তৈরি করা সম্ভব।

১৩। TA Dailyblog

ব্লগারদের জন্য একটি চমৎকার থিম নিয়ে TA DailyBlog এর থিম ডিজাইন করা হয়েছে। স্মার্টফোন, ডেক্সটপ কিংবা যেকোনো ধরণের ডিভাইসে অপটিমাইজেশনের চমৎকার সুযোগ রয়েছে এই থিম দিয়ে। যারা শখের বশে কিংবা প্রফেশনালি ব্লগিং করে থাকেন তাদের কথা মাথায় রেখেই এই থিমটি ডিজাইন করা হয়েছে। এই থিম সম্পূর্ণ ফ্লেক্সিবল এবং কাস্টোমাইজ করার উপযুক্ত। এছাড়াও এই থিমটি SEO ফ্রেন্ডলি। অনেক জনপ্রিয় প্লাগইন ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে এতে।

১৪। InterStellar

ছিমছাম ও নান্দনিক ডিজাইনের জন্য InterStellar একটি চমৎকার ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম। এই থিম দিয়ে খুব সহজে পোর্টফোলিও এবং ব্লগ তৈরি করা সম্ভব। মাল্টিপল পেইজ লেআউট দিয়ে লেআউট, কালার স্কিম, লোগো, গুগল অ্যানালাইটিক্স কোড, বাটন, গুগল ম্যাপ, কলাম প্রভৃতি অ্যাড করার সুযোগ রয়েছে।

১৫। Arcade

HTML5 থিম Arcade দিয়ে সম্পূর্ণ রেসপন্সিভ করে সাইট তৈরি করা সম্ভব। নিজের পছন্দমতো আপনি এখানে হেডার ইমেজ, পেইজ লেআউট, সাইট ওয়াইডথ প্রভৃতি কাস্টোমাইজ করে নিতে পারবেন। এছাড়া প্রতিটা পোস্ট ভিডিও, ইমেজ, স্ট্যাটাস, অডিও, কোট, লিংক, গ্যালারি – প্রভৃতি ফরম্যাটে ভাগভাগ করে নেয়া যাবে।

১৬। Glider

এটি মূলত একটি টেক্সটের উপর ভিত্তি করে ডিজাইন করা ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস থিম। তাই ইমেজ নিয়ে ঘাটাঘাটি করে সময় নষ্ট করার কোনো দরকারই নেই এই থিমটি ব্যবহার করলে। তাছাড়া পেজ লোড থেকে ইন্টারেপশনের কোনো সুযোগ নেই এতে। কনটেন্ট খুঁজে পাওয়া তাই খুব সহজ এই থিমে।

১৭। Grid

গ্রাফিক্যালি Grid একটি বেশ চমৎকার থিম। ডিজাইনের ভেতর তারতম্য থাকার কারণে এটি বেশ জনপ্রিয় একটি ওয়ার্ডপ্রেস থিম। পোর্টফোলিও, আর্টিস্ট এবং ইভেন্টের জন্য এই থিমটি বেশ ভালো কাজ করে। কনটেন্ট ব্যাকআপ রাখার সুযোগ রয়েছে এতে। তাছাড়া রেসপন্সিভ হওয়ার কারণে এটি থিম হিসেবে অন্যান্য থিমগুলোর মধ্যে অন্যতম।

১৮।  ARCHITEKT

এটি মূলত একটি মিনিমালিস্ট এবং রেসপন্সিভ থিম। Architekt এর মিনিমালিস্ট লেআউট থাকার কারণে এখানে আপ করা কনটেন্ট বিশেষ করে ইমেজ খুব ভালোভাবে হাইলাইটেড হয়। ওয়ার্ডপ্রেসের রেসপন্সিভ থিমগুলোর মধ্যে তাই Architekt তাই বেশ অন্যতম।

 

উপরের ওয়ার্ডপ্রেস থিম কালেকশনগুলো ব্যবহার করে আপনার সাইটকে করে তুলুন আরও আকর্ষণীয়!

 

তথ্যসূত্রঃ

https://www.creativebloq.com

ফেইসবুকের সাহায্যে মন্তব্য দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*